শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০২৪
20.2 C
Toronto

Latest Posts

ভারতের দাবির সঙ্গে একমত নন ট্রুডো

- Advertisement -
হারদীপ সিং হত্যাকান্ডে ভারত সরকারের কোনো ধরনের সম্পৃক্ততার অভিযোগ করেছে নয়া দিল্লি। তারা এই অভিযোগকে অযৌক্তিক এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে মন্তব্য করেছে। যদিও ভারতের এই দাবির সঙ্গে একমত হতে পারেননি কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো

হারদীপ সিং হত্যাকান্ডে ভারত সরকারের কোনো ধরনের সম্পৃক্ততার অভিযোগ অস্বীকার করেছে নয়া দিল্লি। তারা এই অভিযোগকে অযৌক্তিক এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে মন্তব্য করেছে। যদিও ভারতের এই দাবির সঙ্গে একমত হতে পারেননি কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো।

ট্রুডো এখনো ভারতের প্রতি বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে গ্রহণের আহ্বান জানিয়ে যাচ্ছেন। লিবারলেরাও বলছেন, ভারতের সঙ্গে স্বাভাবিক সম্পর্ক থাকবে বলে তারা আশা করছেন। কারণ, দেশটিকে ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলে গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার হিসেবে বেছে নিয়েছে অটোয়া।

- Advertisement -

প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো সোমবার হাউজ অব কমন্সে এই তথ্য দেন যে, ব্রিটিশ কলাম্বিয়ান শিখ নেতা হারদীপ সিং নিজ্জারের হত্যাকা-ের সঙ্গে ভারতের সরকারের সম্ভাব্য সম্পর্কের বিষয়ে নির্ভরযোগ্য তথ্যের বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে কানাডিয়ান ইন্টেলিজেন্স সার্ভিসেস।

সংসদে ট্রুডো বলেন, ভারত সরকারের উচিত বিষয়টিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব সহকারে নেওয়া। তবে তারা সহযোগিতা করছে কিনা সেটা নিশ্চিত নয়। এটা সত্যিই গুরুতর এবং আন্তর্জাতিক আইনে এর ফলাফল অনেক ব্যাপক। মিত্রদের কাছে এবং জি২০ সম্মেলনের সাইডলাইনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে বিষয়টি তোলার আগ পর্যন্ত তিনি অপেক্ষা করে ছিলেন। এরপর তিনি প্রকাশ্যে আনলেন বিষয়টি। কী ঘটেছিল তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে সে সম্পর্কে সঠিক ধারণা আমরা পেতে চাই। আমাদের মিত্রদের সঙ্গে এ নিয়ে আলোচনার জন্য এবং আমরা যা জানি তা তাদেরকে জানানোর জন্যই আমরা সময় নিয়েছিলাম। এর পরিণাম সম্পর্কে ভারত সরকারকেও পুরোপুরি বিষয়টি জানাতে চেয়েছিলাম আমরা।

অটোয়া সোমবার ভারতের একজন জ্যেষ্ঠ কূটনীতিককে কানাডা ত্যাগের নির্দেশ দেয়। পাল্টা হিসেবে ভারতও নাম না প্রকাশ করা এক কানাডিয়ান কূটনীতিককে সেদেশ ছেড়ে যাওয়ার নির্দেশ দেয়। অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ এবং ভারতবিরোধী কর্মকা-ে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে তাকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ দেয় নয়া দিল্লি।

ট্রুডোর ঘোষণার পর ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, তারা এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করছে। শিখ বিচ্ছিন্নতাবাদীদের বিষয়ে কানাডা সরকারের নিস্ক্রিয়তা দীর্ঘদিনের এবং এটা উদ্বেগ বাড়িয়েই চলেছে। জাস্টিন ট্রুডোর মঙ্গলবারের বক্তব্যের আগে এক বিবৃতিতে এই কথা উল্লেখ করে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সরকারের একটি সূত্র বলেছে, অভিযোগের সত্যতার বিষয়ে জাস্টিন ট্রুডো এতটাই আত্মবিশ^াসী যে, বিষয়টি তিনি নয়া দিল্লিতে সরসারি নরেন্দ্র মোদির কাছে তুলে ধরেন।

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.