রবিবার, মে ২৬, ২০২৪
19.3 C
Toronto

Latest Posts

৭ম বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর শুভেচ্ছাবার্তা

- Advertisement -
প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো

কানাডার সর্বাধিক পঠিত বাংলা সংবাদপত্র সাপ্তাহিক বাংলামেইলের উদ্যোগে প্রতিবছরের মতো আগামী ১৮ মে শনিবার ১৯০ রেলসাইড রোডের টরন্টো প্যাভিলিয়নে ৭ম বারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল’। কানাডার বাংলাদেশি কমিউনিটির সর্ববৃহৎ এই ইনডোর ইভেন্ট উপলক্ষে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো অফিসিয়াল শুভেচ্ছাবার্তা পাঠিয়েছেন।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী শুভেচ্ছাবার্তায় বলেন, ‘এবার সপ্তমবারের মতো বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যালে যোগদানকারী সকলকে জানাচ্ছি আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা। এই আয়োজনে বাংলাদেশী কানাডিয়ানদের সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক চর্চার সুযোগ থাকবে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য বাংলাদেশি কানাডিয়ানদের সম্মান জানানো হবে। আমি আশা করছি, ফেস্টিভ্যালে অংশগ্রহনকারীরা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ নানা ধরনের আয়োজন উপভোগ করবে।’

- Advertisement -

জাস্টিন ট্রুডো আরো বলেন, ‘আমি বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল আয়োজনকারী সাপ্তাহিক বাংলামেইলকে ধন্যবাদ জানাতে চাই এজন্য যে, তারা অসাধারণ একটি আয়োজন করতে যাচ্ছেন। কারণ নিজেদের কৃস্টি এবং সংস্কৃতি কানাডীয় বন্ধুদের মাঝে পরিচিত করার এটা একটা অবারিত সুযোগ। এবারের বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল আনন্দময় এবং স্মরণীয় হয়ে উঠুক-এই শুভকামনা আমার।’

কানাডার প্রধানমন্ত্রীর এই শুভেচ্ছাবার্তায় ফেস্টিভ্যাল কমিটির সকল সদস্যের মনে আনন্দের জোয়ার বইছে। বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল কমিটির পক্ষে এনআরবি টিভির সিইও ও বাংলামেইল সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিন্টু বললেন, ‘আমাদের এই আয়োজন উপলক্ষে গত ছয় বছরই প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো শুভেচ্ছাবার্তা দিয়েছিলেন। এবারও তিনি শুভেচ্ছাবার্তা দিলেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। এটা আমাদের জন্য অনেক সম্মানের। তার এই শুভেচ্ছাবার্তা আমাদের আরো উৎসাহিত করবে। বাংলাদেশের সংস্কৃতি, কৃস্টি এবং ঐতিহ্যের মধ্যে সেতুবন্ধন রচনা করাই এই আয়োজনের মূল লক্ষ্য। হাজার হাজার দর্শকের উপস্থিতি এই আয়োজনের মূল প্রাণ। এবারও ব্যতিক্রম হবে না।’

৭ম বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যালের এবারের আয়োজনে গাইবেন বাংলা ব্যান্ড সঙ্গীতের আকাশচুম্বি জনপ্রিয় তারকা শাফিন আহমেদ। কিংবদন্তি সুরকার ও সংগীত পরিচালক কমল দাশগুপ্ত এবং গুণী নজরুল সংগীতশিল্পী ফিরোজা বেগম দম্পতির সন্তান শাফিন আহমেদ ছোট বেলা থেকেই গানের পরিবেশে বেড়ে ওঠেন। বাবার কাছে কিছুদিন উচ্চাঙ্গসংগীত, মায়ের কাছ থেকে নজরুল সংগীত শেখেন এবং নিজের প্রচেষ্টায় শেখেন পাশ্চাত্য সংগীত। পড়াশুনার সুবাদে ইংল্যান্ডে পাড়ি জমান। কিন্তু একজন সংগীতপ্রেমী হিসেবেই শাফিন আহমেদের বিকাশ ঘটে। জনপ্রিয় ইংরেজি গান কাভার করা শুরু করেন এবং মিউজিক্যাল ব্যান্ড গড়ে তোলার ব্যাপারে সক্রিয় হন।

১৯৭৯ সালে শাফিন আহমেদ গড়ে তোলেন বাংলাদেশের ইতিহাসে অন্যতম সেরা জনপ্রিয় ব্যান্ড দল ‘মাইলস’। ১৯৮২ সালে প্রথম অ্যালবাম “মাইলস” এবং ১৯৮৬ সালে “স্টেপ ফাদার” দিয়ে মাইলসের নিজস্ব গান বাজারে আসে। ১৯৯১ সালে রিলিজ হয় প্রথম বাংলা অ্যালবাম “প্রতিশ্রুতি”। এই অ্যালবামের চাঁদ-তারা গানটি তখন বিপুল জনপ্রিয়তা পায়।

সেই থেকে শুরু। এরপর শত শত জনপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন উপমহাদেশের এই অন্যতম সংগীত তারকা। চাঁদ তারা সূর্য, দরদিয়া, প্রথম প্রেমের মত, জাদু, কতকাল খুঁজবো তোমায়, ধি কি ধি কি, পাহাড়ী মেয়ে, পিয়াসি মন, জাতীয় সংগীতের দ্বিতীয় লাইন, জ্বালা জ্বালা, ফিরিয়ে দাও এর মত তুমলু জনপ্রিয় গানগুলি আজও কোটি কোটি বাঙালির মনে দোলা দেয়।
৭ম বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যালের পক্ষে সাপ্তাহিক বাংলামেইল সম্পাদক ও এনআরবি টিভির সিইও শহিদুল ইসলাম মিন্টু বলেন, ‘বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যালের মঞ্চে এবারই প্রথম কোনো ব্যান্ড তারকা পারফর্ম করবেন। শাফিন আহমেদকে পেয়ে আমরা আনন্দিত। অনলাইনে টিকেট বিক্রি শুরু হয়েছে। মাত্র দুই সপ্তাহে রেগুলার টিকেট সোল্ডআউট। এখন কেবলমাত্র ভিআইপি ও ভিভিআইপি টিকেট রয়েছে। দেরি না করে এখনই আপনার টিকেট সংগ্রহ করুন।’ অনলাইনে টিকেট- tinyurl.com/bdfest2024 । স্টল ও স্পন্সরের জন্যে যোগাযোগ : ৪১৬-২৬২-৯৬৪২, ৬৪৭-৯২৩-৮২৩৩, ৬৪৭-৯৩৩-৬৭৬৩ ।

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.