বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ২৭, ২০২২
-9.8 C
Toronto

Latest Posts

স্থগিত স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের তাগিদ

- Advertisement -
ছবি/বারমিক্স স্টুডিও

আগে থেকেই ধুকতে থাকা কানাডার স্বাস্থ্যসেবা খাতে বিশৃঙ্খলা ডেকে এনেছে কোভিড-১৯ মহামারি। মহামারির ঢেউ থিতু হয়ে এলে স্বাস্থ্যসেবা খাত পুনর্গঠনকে এক প্রকার অসম্ভব পরিকল্পনার দিকে ঠেলে দিয়েছে।

সংক্রমণ চূড়ায় পৌঁছলে ঐচ্ছিক অস্ত্রোপচারগুলো স্থগিত করতে বাধ্য হয়েছে হাসপাতালগুলো। এতে করে স্বাস্থ্যসেবা প্রত্যাশীদের অপেক্ষমাণ তালিকাটা এতো দীর্ঘ হয়েছে যে, অপেক্ষা করতে করতে রোগীরা প্রাণ বায়ু ত্যাগ করবেন কিনা সেই দুশ্চিন্তায় আছেন চিকিৎসকরা।

- Advertisement -

এদিকে নার্সরা গত বছর চরম ক্লান্তিতে পড়েন এবং দায়িত্বে থাকা প্রায় অর্ধেক নার্স এক পর্যায়ে খাতটি ছাড়তে থাকেন। এর ফলে হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা অস্ত্রোপচার করবে নাকি নার্সদের ধরে রাখবে সেগুলোর একটিকে বেছে নিতে বাধ্য হয়।

কানাডিয়ান ইনস্টিটিউট ফর হেলথ ইনফরমেশনের তথ্য অনুযায়ী, মহামারির প্রথম ১৬ মাসে ২০১৯ সালের তুলনায় ৫ লাখ ৬০ হাজার কম অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। অনিস্পন্ন এসব অস্ত্রোপচার সম্পন্ন করতে কয়েকশ কোটি ডলার খরচ হবে।

কানাডার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট হার্ভার্ডের এক অধ্যাপক দাবি করেন, এর একটি সমাধান তার কাছে রয়েছে। অন্টারিওর কিছু হাসপাতালে সেটি কাজেও দিচ্ছে। সেটা হলো শল্য চিকিৎসকদের কাজকে সপ্তাহান্তেও করে দিন।

অলাভজনক প্রতিষ্ঠান ইনস্টিটিউট ফর হেলথ কেয়ার অপটিমাইজেশন ইন ম্যাসাচুসেটসের প্রেসিডেন্ট ইউজিন লিটভাক বলেন, এর অর্থ হলো কানাডায় অস্ত্রোপচারের অপেক্ষমাণ সময় কমিয়ে আনছেন। এর মাধ্যমে অধিক সংখ্যক রোগী সেবা পাবেন।

লিটভাক বলেন, শল্য চিকিৎসকরা সাধারণত অস্ত্রোপচারের জন্য সপ্তাহের শুরুর দিনগুলো নির্ধারণ করে থাকেন। সপ্তাহান্তে রোগীদের ডাকে যাতে সাড়া দিতে না হয় সেজন্যই তারা কৌশলটি অবলম্বন করে থাকেন।

বিষয়টির ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, এর অর্থ হলো সপ্তাহের শুরুর দিকে অস্ত্রোপচারের রোগীরা বেশি শয্যা দখল করে থাকেন। এর ফলে জরুরি রোগীদের ভর্তির জন্য দীর্ঘ অপেক্ষায় থাকতে হয়। হাসপাতালগুলো সপ্তাহের মাঝামাঝি এসে অতি ব্যস্ত হয়ে পড়ে এবং রোগীর পরিচর্যা করতে করতে নার্সরা ক্লান্ত হয়ে পড়েন।

ধারণাটি নতুন নয় বলে দাবি করেন ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অব মেডিসিনের সাবেক প্রেসিডেন্ট ড. হার্ভি ফিনবার্গ।

কানাডায় সবচেয়ে বেশি অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয় টরন্টোর ইউনিভার্সিটি হেলথ নেটওয়ার্কে। মহামারি আঘাত হানার পরপরই ইনস্টিটিউটের হেলথ কেয়ার অপটিমাইজেশন পদ্ধতি অনুসরণ করে তারা। সারা সপ্তাহে তারা কর্মভার পুনর্বণ্টন করে থাকে।

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.