শনিবার, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২৪
-4.1 C
Toronto

Latest Posts

ইয়ং স্ট্রিটের ফাঁকা অংশ নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে টরন্টোবাসীর

- Advertisement -

টরন্টোর একটি প্রধান সড়ক বরাবর রাস্তামুখী স্টোরের একটি ব্লক বসন্ত থেকে ফাঁকা পড়ে রয়েছে। অংশটি কালো পেইন্টে ঢাকা এবং ভাঙার অপেক্ষায় রয়েছে।

- Advertisement -

স্নাইডার মিউজিকের সাবেক সত্ত্বাধিকারী মাইকেল স্নাইডার সিটিভি নিউজ টরন্টোকে বলেন, এটা এলাকার জন্য এক ধরনের অবনতি। ১৯৮৬ সালে আমরা যখন এখানে আসি তখন পৃথিবীর সব ধরনের ব্যবসাই এখানে চালু ছিল।

স্নাইডারের পারিবারিক ব্যবসা লরেন্স অ্যাভিনিউয়ের কাছে ইয়ং স্ট্রিটে ছিল। তিনি বলেন, কবে নাগাদ নির্মাণকাজ শুরু হবে তা নিয়ে আমি উদ্বিগ্ন। কবে নাগাদ এ কাজ শুরু হবে কেউই জানে না।

জমিটি যে ডেভেলপারের মালিকানায় রয়েছে তারা ব্লকটিতে কন্ডো নির্মাণের পরিকল্পনা করছে। সেখানে থাকবে স্ট্রিট পর্যায়ে মিশ্র ব্যবহারের জন্য রিটেইল স্পেস। স্থানীয় ব্যবসায়ী অ্যাসোসিয়েশনের এই পরিকল্পনা নিয়ে কোনো সমস্যা নেই। তবে সদস্যরা বলেন, তাদের রাস্তাজুড়ে থাকা ব্ল্যাক হোল নিয়ে তাদের সঙ্গে কখনোই কোনো পরামর্শ করা হয়নি।

এ ব্যাপারে বক্তব্যের জন্য ডেভেলপার মন্টক্রেস্ট অ্যাসেট ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে যোগাযোগ করে সিটিভি নিউজ। তবে তাদের কাছ থেকে এ ব্যাপারে কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি।
ওই এলাকার একাধিক ব্যবসায়ী বলেন, বসন্তে কালো পেইন্ট দেখা যায় এবং তারপর থেকেই সেটা রয়েছে।

ইয়ং অ্যান্ড লরেন্স বিআইএর কোষাধ্যক্ষ বেভারলি ডন বলেন, ডেভেলপার প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধির সঙ্গে গত অক্টোবরে একটি বৈঠক হয়েছিল। রঙটি পরিবর্তন করা যায় কিনা সেই অনুরোধ আমি তাদেরকে করেছিলাম। তিনি বলেছিলেন, ঠিক আছে, আমরা বিষয়টি দেখব এবং তার বিষয়টি আমাকে জানানোর কথা ছিল। কিন্তু সেটা হয়নি।

সিটি কর্তৃপক্ষের তথ্য অনুযায়ী, উন্নয়নকাজে বিলম্বের কারণ অনুমোদনের অভাব। একজন মুখপাত্র বলেন, ভাঙার অনুমোদন এই বছরের মার্চে দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ডেভেলপার প্রযোজ্য আইন পরিপালন না করাই তা ইস্যু করা হয়নি। পুনস্থাপন ভবনের অনুমোদন না দেওয়া পর্যন্ত আবাসিক ভবন ভাঙার সুযোগ নেই। এই সময়ে পুনস্থাপন ভবনের কোনো অনুমোদন প্রযোজ্য নয়।

প্রকল্পটি নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছেন বেডফোর্ড পার্ক রেসিডেন্টস অর্গানাইজেশনের (বিপিআরও) সদস্য টেড বাটলার। সিটিভি নিউজ টরন্টোকে তিনি বলেন, এখানে ডেভেলপারের কোনো ত্রুটি আছে বলে আমার কাছে মনে হয় না। গ্রীষ্মের কোনো এক সময় ভাঙার কাজ শুরু করার লক্ষ্য ছিল তাদের। কিন্তু এখনো সেখানে কিছু লোকজন বসবাস করছে। তারা উচ্ছেদ প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে তারা যাচ্ছে বলে আমার মনে হয়।

 

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.