বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪
-4.7 C
Toronto

Latest Posts

অন্টারিও সায়েন্স সেন্টারে স্কুল নির্মাণের কথা ভাবছেন ফোর্ড

- Advertisement -
গত সপ্তাহে ফোর্ড এক ঘোষণায় বলেছিলেন, অন্টারিও প্লেসে সায়েন্স সেন্টার থাকবে। যদিও বর্তমান স্থানের চেয়ে এর ফুটপ্রিন্ট হবে ছোট

বর্তমানে অন্টারিও সায়েন্স সেন্টার যেখানে আছে সেখানে স্কুল ও কমিউনিটি সেন্টার প্রতিষ্ঠার কথা ভাবছেন প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড। সেখানে আবাসন ইউনিট গড়ে তোলার ঘোষণার এক সপ্তাহ পর এমন সিদ্ধান্তের কথা সামনে এলো।
গত সপ্তাহে ফোর্ড এক ঘোষণায় বলেছিলেন, অন্টারিও প্লেসে সায়েন্স সেন্টার থাকবে। যদিও বর্তমান স্থানের চেয়ে এর ফুটপ্রিন্ট হবে ছোট। এর নির্মাণ শুরু হবে ২০২৫ সালে। বর্তমান সায়েন্স সেন্টার ভেঙে সেখানে কয়েক হাজার ইউনিট বাড়ি নির্মাণ করা হবে।

কিন্তুু বৃহস্পতিবার অন্টারিও প্লেস ও সায়েন্স সেন্টার নিয়ে অনেক প্রশ্নের সম্মুখীন হন ডগ ফোর্ড এবং আবাসনের কোনো উল্লেখ তিনি করেননি। এর পরিবর্তে তিনি বেশ কিছু ধারণার কথা উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, এটা সিটি অব টরন্টোর জায়গা। তারা যদি সহযোগিতার ভিত্তিতে ক্জা করতে চায়, তাদের যদি কমিউনিটি সুবিধার কোনো প্রয়োজন পড়ে, তাহলে আমি শুনেছি তাদের নতুন একটি স্কুলের প্রয়োজন। তাহলে আমরা সেখানে একটি নতুন স্কুল নির্মাণ করবো। তাদের যদি নতুন কমিউনিটি সেন্টারের প্রয়োজন হয়, তাহলে আমরা সেখানে কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণ করবো।

- Advertisement -

এর কয়েক মিনিট পর আইন পরিষদে প্রশ্নোত্তর পর্বে ফোর্ডের সহযোগী আবাসনমন্ত্রী সায়েন্স সেন্টারের ব্যাপারে এনডিপি এমপিপির প্রশ্নের উত্তর দেন। সেই সঙ্গে অন্টারিওতে আরও বেশি আবাসনের প্রয়োজনীয়তার ওপরও জোর দেন।
এর মধ্যে অনেক বার্তা রয়েছে বলে মন্তব্য করেন এনডিপি নেতা মারিট স্টাইলিস। তিনি বলেন, সমস্যা সমাধানে সরকারের এটা তাৎক্ষণিক পরিকল্পনা। আগামীকাল বা তার পরের দিন কী ঘটতে যাচ্ছে আপনি তা জানেন না। প্রতিদিনই পরিকল্পনার বদল হচ্ছে এবং এই স্কিমের ব্যাপারে উত্তরের চেয়ে প্রশ্ন অনেক বেশি।

বর্তমান সায়েন্স সেন্টারের বেশিরভাগ জমির মালিক টরন্টো অ্যান্ড রিজিয়ন কনজার্ভেশন অথোরিটি। তারা বলছে, সায়েন্স সেন্টারের সম্ভাব্য স্থানান্তর বিষয়ে প্রদেশের সঙ্গে তাদের কোনো আলোচনা হয়নি। এখানকার বেশিরভাগ জমি খাড়া উপত্যকার মতো এবং এখানে আবাসন গড়ে তোলা ঝুঁকিপূর্ণ।

বাকি জমির বেশিরভাগের মালিক সিটি কর্তৃপক্ষ। সিটি কর্তৃপক্ষের একজন মুখপাত্র মঙ্গলবার বলেন, বর্তমান যে ঋণচুক্তি তাতে সায়েন্স সেন্টার ভেঙে ফেলা যাবে। কিন্তু নতুন কোনো অবকাঠামো নির্মাণ করা হলে তা হতে হবে সায়েন্স সেন্টার পরিচালনার উদ্দেশে।

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.