বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৮, ২০২২
27.2 C
Toronto

Latest Posts

ফ্রীডম কনভয়ের সংগঠকের মোবাইল বার্তা এখন পুলিশের হাতে

- Advertisement -
তামারা লিচ এবং ক্রিস বারবারের মধ্যে হওয়া মোবাইল বার্তাগুলো অটোয়া পুলিশ হস্তগত করেছে

‘ফ্রীডম কনভয়’ এর সংগঠক তাদের ভাবমূর্তি এবং উদ্দেশ্যর প্রতি সহানুভূতি অর্জনের আশায় সামগ্রিক কৌশল হিসেবে প্রাচীন মেটিস গোত্রের সাথে সম্পর্ক থাকার বিষয়টি ব্যবহার করছে, মোবাইল বার্তায় এমনটিই প্রতিয়মান হয়।

তামারা লিচ এবং ক্রিস বারবারের মধ্যে হওয়া মোবাইল বার্তাগুলো অটোয়া পুলিশ হস্তগত করেছে। চলতি সপ্তাহে লিচের জামিনের শুনানিতে সরকার পক্ষ প্রমান হিসেবে বার্তাগুলো আদালতে পেশ করেছে। কোভিড-১৯ এর কারনে সরকার প্রনয়ন কৃত বিধিনিষেধ এবং লিবারেল সরকার বিরুদ্ধে এই প্রতিবাদ সমাবেশ তিন সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে রাজধানীর কেন্দ্রে অবস্থান করে। এসময় তারা বিশাল আকৃতির ট্রাক এবং অন্যান্য যানবাহন দিয়ে রাস্তা অবরোধ করে, উচ্চস্বরে হর্ন বাজাতে থাকে। বিক্ষোভকারীরা সীমান্তবর্তি একাধিক রাস্তাও অবরোধ করে রাখে।

- Advertisement -

পরবর্তীতে বাধ্য হয়ে ফেডারেল সরকার জরুরী আইন প্রণয়ন করে এবং সমাবেশ ভঙ্গ করতে পুলিশ মোতায়ন করে। এই প্রতিবাদে প্রত্যক্ষ ভূমিকা রাখার জন্য তামারা লিচ এবং ক্রিস বারবারের বিরুদ্ধে অপকর্ম, পুলিশের কাজে বাধা দেওয়া, অন্যদেরকে অপকর্ম করতে প্ররোচিত করা এবং ভয় ভীতি দেখানোর অভিযোগ আনা হয়। এবং তাদের আটক করা হয় এবং পরবর্তীতে ক্রিস বারবার জামিনে ছাড়া পায়।

কিন্তু শুক্রবারে আদালতের দেয়া রায়ে লিচের বিরুদ্ধে নতুন একটি অভিযোগ আনা হয় যে লিচ জামিনে মুক্ত থাকার সময় জামিনের শর্ত ভঙ্গ করে এবং সেই কারনে তার জামিন প্রত্যাহার করা হয়। চলতি সপ্তাহে তামারা লিচের জামিনের শুনানিতে ক্রিস বারবারের আইনজীবী আদালতের কাছে মোবাইল বার্তার সামগ্রিক নথি যেন প্রকাশ করা না হয়, এই বিষয় একটি আবেদন করে এবং আদালত সেই আবেদন মঞ্জুর করে। সেখানে লিচের সাথে মোবাইল বার্তা ছাড়া বাকি মোবাইল বার্তা প্রকাশ না করার আবেদন করা হয়েছিল। ক্রিস বারবারের কৌসুলি ডায়ান ম্যাগাস বলেছে, সরকারের পক্ষ থেকে যে প্রমান দেখানো হয়েছে, সেটা অসম্পূর্ণ এবং ভুলভাবে ব্যাখ্যা করা হতে পারে। লিচের আইনজীবী লরেন্স গ্রিনস্পন শুক্রবার আদালতের বাইরে মোবাইল বার্তাগুলোর ব্যাপারে মন্তব্য করতে অসম্মতি জানান।

বিক্ষোভ পরিকল্পনা করার সময় লিচ এবং বারবার জানতেন তাদের সমালোচনায় জাতিগত পরিচয় উঠে আসতে পারে। তাই লিচ নিজেকে প্রাচীন মেটি গোত্রের সদস্য হিসেবে পরিচয় দেন। অন্যদিকে ২০ জানুয়ারী ২০২২, বিক্ষোভকারীরা অটোয়াযতে প্রবেশ করার প্রায় এক সপ্তাহ আগে কনভয়ের আরেকজন সংগঠক ক্রিস বারবার লিচকে মোবাইলে বার্তা পাঠায় এই বলে যে তার স্ত্রীও প্রাচীন মেটি গত্রের সদস্য। এই ব্যাপারে লিচের বারবারকে দেয়া বার্তাটা এরকম ছিল, “মেটি গত্রের সদস্য হওয়ার ব্যাপারটা আমাদের পক্ষে কাজ করতে যাচ্ছে, এটা আমাদের সব কাজ সহজ করে দিতে সাহায্য করবে।”

একই দিনে পডকাস্টে বারবারের একটি সাক্ষাত্কার দেয়ার জন্য লিচ তাকে অভিনন্দন জানিয়ে মোবাইল বার্তা পাঠায়। লিচ জানান বারবারের সাক্ষাতকারটি যথাযথ, রাজনৈতিক ভাবে সঠিক এবং তাদের উদ্দেশ্য বোঝানোর জন্য যথেষ্ট পরিস্কার ছিল।

২২ জানুয়ারী ২০২২, বারবার এবং লিচের কথোপকথন থেকে আরও জানা যায় যে বারবার লিচকে জানান তার এত বছরের “সোশ্যাল মিডিয়া ট্রোলিং” এর সুফল তিনি পেতে চলেছেন৷ কনভয়ের সমালোচনাকারীদের প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, “আমি এসব(ট্রোলিং) তাদের বিরুদ্ধে ব্যবহার করব।“

এই জুটির মোবাইল কথোপকথন থেকে উল্লেখিত প্রতিবাদ সমাবেশের আরেকজন সংগঠক প্যাট কিং সম্পর্কে তাদের উদ্বেগ এবং আশঙ্কা প্রকাশ পেয়েছে। প্যাট কিং এর অপকর্ম, ভীতি প্রদর্শন, পুলিশের কাজে বাধা দেওয়া, আদালতের আদেশ অমান্য করা, মিথ্যাচার এবং ন্যায়বিচারে বাধা দেওয়ার অভিযোগে বর্তমানে অটোয়ার কারাগারে আটক রয়েছেন। তার আইনজীবী এখনও কোন মন্তব্যে করেননি।

৩০ জানুয়ারী ২০২২, লিচের কাছ থেকে বারবারের কাছে একটি পাঠ্য বার্তা পাঠানো হয় যেখানে বলা হয় লিচ ‘কমান্ড সেন্টার’ থেকে একটি আদেশ পেয়েছে যেখানে পুরো শহরকে স্তবির করার কৌশল জানানো হয়েছে।

কিছু কনজারভেটিভ পার্টির সাংসদ বিক্ষোভকারিদের আগমনে আনন্দ প্রকাশ করেছিলেন, কারণ তারাও পার্টির ফেডারেল কর্মী এবং ভ্রমণকারীদের জন্য ট্রুডো সরকারের প্রণয়নকৃত ভ্যাকসিন আদেশ নীতির বিরোধিতা করেছিল। ৩১ জানুয়ারী ২০২২, টোরি এমপি মেরিলিন গ্লাডু ‘অটোয়াতে কঠোর পরিশ্রমী ট্রাকার’ হিসাবে বর্ণনা করে দুজন ট্রাক ড্রাইভারের সাথে তোলা একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে, সেখানে তার আরেক সহকর্মী ক্যান্ডিস বার্গেনও উপস্থিত ছিলেন।

কয়েক দিন পর লিচ তার বার্তায় লিখেন, “ক্যান্ডেস বার্গেন শীঘ্রই তার সাথে দেখা করতে চায়। আপনি কি মনে করেন?” বারবার সরাসরি সেই প্রশ্নের কোন উত্তর দেননি। বার্গেনের একজন মুখপাত্র ক্রিস্টোফার মার্টিন-চ্যান বলেছেন, শেষ পর্যন্ত সমাবেশের প্রতিনিধি এবং অন্তর্বর্তী নেতার মধ্যে কোনো বৈঠক হয়নি।

রক্ষণশীল এমপি গ্লেন মোটজ লিচের সাথে কথা বলেছিলেন এবং এমপিদের সাথে তার যোগাযোগের মাধ্যম হিসাবে কাজ করতে ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। মোটজ নিশ্চিত করেছিলেন তিনি চলমান প্রতিবাদ সমাধানের প্রয়াসে লিচের সাথে সরাসরি কথা বলছেন এবং মন্ত্রীদের সাথে বৈঠকের ব্যাপারে সুবিধা দেওয়ার চেষ্টা করছেন। দুর্ভাগ্যবশত, জননিরাপত্তা মন্ত্রী মার্কো মেন্ডিসিনো এবং পরিবহন মন্ত্রী ওমর আলঘাবরার সাথে বেশ কয়েকবার কথোপকথনের পরে তারা প্রতিবাদ সংগঠকের সাথে আর কোনও সমাধান মুলক বৈঠকে বসতে রাজি হননি। মোটজ বলেছিলেন, তিনি বিশ্বাস করেন যদি লিবারেল সরকার সেই বৈঠকে অংশগ্রহণ করত তবে পুরো ব্যাপারটি অন্যভাবে সমাধান করা যেত।

পরিবহন মন্ত্রী ওমর আলঘাবরার কার্যালয় থেকে প্রকাশিত একটি বিবৃতিতে বলা হয় “যারা আমাদের সীমানা অবরুদ্ধ করে, আমাদের অর্থনীতিতে আঘাত করে এবং অটোয়া শহরের বাসিন্দাদের আতঙ্কিত করে, এমন ব্যক্তিদের সাথে দেখা করার ব্যাপারে আমরা কানাডিয়ানরা দায়বদ্ধ নই।” জননিরাপত্তা মন্ত্রী মার্কো মেন্ডিসিনোর একজন মুখপাত্রও একই কথা বলেছিলেন। মন্ত্রীরা দেখা করতে অসম্মতি জানালে, মোটজ বলেছিলেন যে তিনি লিচ এবং বার্গেনের মধ্যে একটি বৈঠক করার চেষ্টা করেছিলেন। লিচের আইনজীবী সেটা প্রত্যাখ্যান করেন এবং বলেন কেবলমাত্র সরকারকে আলোচনায় শামিল করার মাধ্যমেই এর সমাধান সম্ভব হবে।

কানাডার বিশাল পুলিশ বাহিনির সহায়তা নিয়ে অটোয়া পুলিশ ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২২ থেকে শুরু হওয়া এই বিশাল সমাবেশের বিক্ষোভকারীদের রাজধানী থেকে অপসারণ করতে সফল হয়।

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.