মঙ্গলবার, জুলাই ৫, ২০২২
24.6 C
Toronto

Latest Posts

এই মুহূর্তে কারও বিদেশে ছুটি কাটানো ঠিক নয়: ট্রুডো

- Advertisement -

ছুটি কাটাতে বিদেশ যাওয়ার পথ বেছে নেওয়া ব্যক্তিদের প্রতি কানাডিয়ানরা যে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন, প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো তাদের সঙ্গে একমত বলে মন্তব্য করেছেন। নতুন বছরের প্রথম সংবাদ সম্মেলনে মঙ্গলবার তিনি বলেন, এই মুহূর্তে ছুটি কাটাতে বিদেশে যাওয়া উচিত নয়।

- Advertisement -

প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো বলেন, ছুটিতে বিদেশ সফর বাতিলের চেয়েও মানুষ বেশি কিছু বিসর্জন দিয়েছে। কানাডার বহু মানুষকে দায়িত্বশীল কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। এর পেছনে উপযুক্ত কারণও রয়েছে। এটা তারা করেছেন তাদের চারপাশে থাকা মানুষগুলোকে রক্ষার জন্য।

কানাডার জনস্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১৬ হাজারের বেশি মানুষ। আর সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৭৭ হাজারের উপরে।

কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হওয়ার পর কোয়ারেন্টিনে যাওয়ার কারণে সবেতন ছুটির নতুন যে কেন্দ্রীয় কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে তাতে পরিবর্তন আসছে বলে জানিয়েছেন জাস্টিন ট্রুডো। বিদেশ সফর শেষে দেশে ফিরে যারা কোয়ারেন্টিনে আছেন তাদের জন্য এক হাজার ডলার পর্যন্ত আর্থিক সহায়তা নিয়ে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে।

ট্রুডো বলেন, সহায়তার অর্থ এভাবে ব্যয় করতে হবে, সরকার তা কল্পনাও করতে পারেনি। কর্মসূচিটি নেওয়া হয়েছিলে অসুস্থ্যতাজনিত ছুটিতে থাকা ব্যক্তিদের প্রয়োজনের কথা মাথায় রেখে। অথবা তাদের জন্য যাদের নিয়োগদাতা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে এ ধরনের কোনো সহায়তা কর্মসূচি নেওয়া হয়নি। বিদেশ ভ্রমণ করে দেশে ফিরে যারা কোয়ারেন্টিনে আছেন তাদের প্রদানের জন্য নয় এটি। তাই অনাবশ্যক প্রয়োজনে কারোরই বিদেশ সফরে যাওয়া উচিত হবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এদিকে সংক্রমণের হার বাড়তে থাকায় কানাডার জনস্বাস্থ্য বিভাগের চিফ মেডিকেল অফিসার ডা. তেরেসা ট্যাম মঙ্গলবার বলেন, কানাডার উচিত জনস্বাস্থ্য-সংক্রান্ত সব আদেশ ও উপদেশ মেনে চলা। যুক্তরাজ্যে সনাক্ত হওয়া নতুন ধরনের করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত ৯ জন কানাডিয়ান আক্রান্ত হয়েছেন। তবে দক্ষিণ আফ্রিকায় সনাক্ত হওয়া বিশেষ ধরনের ভাইরাসটিতে এখন পর্যন্ত কানাডায় কেউ আক্রান্ত হয়নি।

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.