মঙ্গলবার, জুলাই ৫, ২০২২
19.7 C
Toronto

Latest Posts

১০০ বিলিয়ন ডলার ব্যয়ের বাজেট

- Advertisement -
১০০ বিলিয়ন ডলার ব্যয়ের লক্ষ্য ধরা হয়েছে

কর্মী ও অসুবিধায় থাকা ব্যবসাগুলোকে কোভিড-১৯ সহায়তা আরও কয়েক মাস অব্যাহত রাখার কথা বলা হয়েছে ফেডারেল বাজেটে। মহামারি থেকে কানাডাকে পুরোপুরি বের করে আনতেই এ পদক্ষেপ বলে উল্লেখ করা হয়েছে এতে।

দুই বছরেরও বেশি সময় পর সোমবার ফেডারেল বাজেট পেশ করে লিবারেল সরকার। বাজেটে আগামী তিন বছরে ১০০ বিলিয়ন ডলার ব্যয়ের লক্ষ্য ধরা হয়েছে। বিভিন্ন শ্রেণির ভোটার যেমন জ্যেষ্ঠ নাগরিক থেকে শুরু করে কেয়ারগিভার, পিতা-মাতা ও ব্যবসায়ীদের লক্ষ্য রেখে এ অর্থ ব্যয় করা হবে। স্বাভাবিকভাবেই তাই অর্থমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ডের এ বাজেটকে দেখা হচ্ছে প্রাক-নির্বাচনী প্ল্যাটফর্ম হিসেবে।

- Advertisement -

অর্থমন্ত্রী এদিন তাঁর বাজেট বক্তৃতায় বলেন, কোভিড-১৯ বিরোধী লড়াই শেষ করতেই এ বাজেট। মহামারির কারণে সৃষ্ট মন্দার কারণে অর্থনীতিতে যে ক্ষত তা সারিয়ে তোলার বাজেট এটি। বাজেটের লক্ষ্য অধিক সংখ্যক কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং আগামী দিন ও দশকে কানাডিয়ানদের জন্য সমৃদ্ধি নিশ্চিত করা।

লিবারেল সরকার যখন এ বাজেট ঘোষণা করছে তখন এই বসন্তে অর্থাৎ মহামারির মধ্যে নির্বাচন এড়াতে অন্তত একটি বিরোধীদলের সমর্থন প্রয়োজন হবে।

কানাডার নিট ঋণ এক ট্রিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে, দেশটির ইতিহাসে যা সর্বোচ্চ। আগের বছর সরকারের বাজেট ঘাটতি ছিল ৩৫৪ বিলিয়ন ডলার। এ বছর কানাডার ঘাটতি দাঁড়াতে পারে ১৫৫ বিলিয়ন ডলার এবং ২০২২-২৩ অর্থবছরে তা নেমে আসতে পারে ৬০ বিলিয়ন ডলারে। নতুন করে আগামী তিন বছরে ১০০ বিলিয়ন ডলার ব্যয়ের কারণেই মূলত এ ঘাটতি দেখা দেবে।

মহামারি পরবর্তী সময়ও বাজেটে টেনে এনেছেন অর্থমন্ত্রী ফ্রিল্যাল্ড। মহামারি পরবর্তী সময়ে দিনে ১০ ডলারের বিনিময়ে চাইল্ডকেয়ার, ভ্যাকসিন উৎপাদনে নিজস্ব সক্ষমতা তৈরি, লং-টার্ম কেয়ারের জাতীয় মানদন্ড তৈরি এবং ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসার টিকে থাকতে প্রয়োজনীয় কর্মী ও প্রযুক্তি সহায়তা প্রদানের কথা বাজেটে বক্তৃতায় তুলে ধরেছেন ফ্রিল্যান্ড। সেই সাথে জলবায়ু পরিবর্তন কর্মসূচিতে ১৭ বিলিয়ন ডলারের বেশি ব্যয়ের প্রতিশ্রুতির মধ্য দিয়ে সবুজ ও পরিচ্ছন্ন কানাডার বিষয়টিও সামনে এনেছেন তিনি। কর্মসূচিটির বেশিরভাগ অর্থ কানাডার ভারী শিল্পগুলোকে কার্বন নিঃসরণ কমানোর জন্য প্রণোদনা হিসেবে দেওয়া হবে।

মহামারির ভার কানাডিয়ানদের অব্যাহতভাবে বহন করতে হচ্ছে বলে জানান অর্থমন্ত্রী। বাজেট বক্তৃতায় এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমরা সবাই ক্লান্ত ও বিধ্বস্ত এমনকি ভীতও। তবে আমরা এ পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসব।

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.