রবিবার, মে ২৬, ২০২৪
18.3 C
Toronto

Latest Posts

মন্ত্রিসভা থেকে খালিদ রশিদের পদত্যাগ

- Advertisement -
অন্টারিওর মন্ত্রিসভা এবং প্রোগ্রেসিভ কনজার্ভেটিভ পার্টির ককাস থেকে পদত্যাগ করেছেন পাবলিক অ্যান্ড বিজনেস সার্ভিস বিষয়ক মন্ত্রী খালিদ রশিদ

অন্টারিওর মন্ত্রিসভা এবং প্রোগ্রেসিভ কনজার্ভেটিভ পার্টির ককাস থেকে পদত্যাগ করেছেন পাবলিক অ্যান্ড বিজনেস সার্ভিস বিষয়ক মন্ত্রী খালিদ রশিদ। লাস ভেগাস ভ্রমণ নিয়ে পরস্পরবিরোধী বক্তব্য দেওয়ার ঘটনায় তার এই পদত্যাগ। প্রদেশের ইন্টেগ্রিটি কমিশনার বিষয়টি তদন্ত করেন।

প্রিমিয়ারের কার্যালয় থেকে বুধবার বিকালে দেওয়া এক সংক্ষিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এমপিপি খালিদ রশিদের পদত্যাগের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে ইন্টেগ্রিটি কমিশনার যদি অভিযোগ থেকে তাকে নিস্কৃতি দেন তাহলে তাতে ককাসে ফিরিয়ে আনার সুযোগ উন্মুক্ত রাখা হচ্ছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।
প্রিমিয়ারের কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই নতুন পাবলিক অ্যান্ড বিজনেস সার্ভিস ডেলিভারি মন্ত্রীর নাম ঘোষণা করা হবে।

- Advertisement -

সাবেক আবাসনমন্ত্রী স্টিভ ক্লার্কের গ্রিনবেল্ট ব্যবস্থাপনার তদন্তের অংশ হিসেবে এন্টগ্রিটি কমিশনার জে. ডেভিড রশিদের লাস ভেগাস ভ্রমণ পর্যালোচনা করে দেখেন। সরকারের একজন মন্ত্রী এবং একজন কর্মী এক ডেভেলপারের সঙ্গে লাস ভেগাসে গিয়েছিলেন এমন অভিযোগের সঙ্গে গ্রিনবেল্ট অনিয়মের সম্ভাব্য সংযোগ থাকতে পারে এমন ধারণার পরিপ্রেক্ষিতেই এই তদন্ত। এই পর্যালোচনার প্রেক্ষিতে সংবাদ মাধ্যম ট্রিলিয়াম এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে যে, দেশের বাইরে সরকারের একজন মন্ত্রী এক ডেভেলপারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন।
ইন্টেগ্রিটি কমিশনারের তথ্য অনুযায়ী, রশিদ এবং প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ডের তখনকার মূখ্যসচিব আমিন মাসুদি ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে ওই সফরে যান এবং ডেভেলপার শাকির রেহমাতুল্লাহার সঙ্গে একটি হোটেলের লবিতে সাক্ষাৎ করেন। রশিদ ইন্টেগ্রিটি কমিশনারকে বলেন, রেহমাতুল্লাহ তার একজন বন্ধু। তবে তিনিও যে সে সময় লাস ভেগাসে যাবেন সেটা তার জানা ছিল না।

রেহমাতুল্লাহ ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি ফ্ল্যাটোর প্রতিষ্ঠাতা। গ্রিনবেল্টের দুটি সাইটের মালিক হিসেবে কোম্পানিটিকে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।

যদিও নথিপত্রে দেখা যায়, মন্ত্রী লাস ভোগস ভ্রমণে গিয়েছিলেন আসলে ২০২০ সালের ফ্রেব্রুয়ারিতে। হোটেলের তিন কর্মীর তকথ্য অনুযায়ী, সফরকারী তিনজনই একই সময়ে মাসাজ নেন। সিটিভি নিউজ টরন্টোকে ওই তিন কর্মী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। রশিদ এবং মাসুদি গুল রিচুয়াল মাসাজ নেন। ডেভেলপার শাকির রেহমাতুল্লাহ নেন ২০২০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৪টার দিকে একই সময়ে একোরের একটি স্পাতে একটি কাস্টম মাসাজ নেন।

পদত্যাগের বিষয়ে রশিদ এক বিবৃতিতে বলেন, সরকারের গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো যাতে বাধাগ্রস্ত না হয় সে কারণে তিনি পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ইন্টেগ্রিটি কমিশনারের তালিকা থেকে আমার নামটি বাদ দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপের দিকে তাকিয়ে আছি আমি, যাতে করে দ্রুতই অন্টারিও পিসি টিমে ফিরে আসতে পারি।
সে পর্যন্ত রশিদ মিসিসোগা ইস্ট-কুকসভিলের স্বতন্ত্র আইনসভার সদস্য হিসেবে কাজ করবেন।

উল্লেখ্য, গ্রিনবেল্ট ইস্যুতে এ নিয়ে ডগ ফোর্ড সরকারের দুজন মন্ত্রীকে পদত্যাগ করতে হলো। এ মাসের গোড়ার দিকে পদত্যাগ করেন আবাসনমন্ত্রী স্টিভ ক্লার্ক। তিনি প্রোগ্রেসিভ কনজার্ভেটিভ পার্টির সদস্য হিসেবে রয়েছেন।

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.