মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১০, ২০২৩
-2.1 C
Toronto

Latest Posts

দীর্ঘমেয়াদী শান্তি প্রতিষ্ঠায় কানাডার সহায়তা চান জেলেনস্কি

- Advertisement -
রাশিয়ার সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদী শান্তি পরিকল্পনার জন্য কানাডার সহায়তা চেয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদোমির জেলেনস্কি

রাশিয়ার সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদী শান্তি পরিকল্পনার জন্য কানাডার সহায়তা চেয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদোমির জেলেনস্কি। শীত এগিয়ে প্রায় ১০ মাসব্যাপী এই যুদ্ধ গুরুত্বপূর্ণ পর্যায়ে পৌঁছানোর অপেক্ষায় থাকায় এ আহ্বান জানালেন তিনি।

হ্যালিফ্যাক্স ইন্টারন্যাশনাল সিকিউরিটি ফোরামে দেওয়া ধারণকৃত ভিডিওতে এই আহ্বান জানান তিনি। ফোরামে কানাডা ও বিভিন্ন দেশের সরকারের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ও সামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

- Advertisement -

জেলেনস্কি অংশগ্রহণকারীদের উদ্দেশ্যে বলেন, কিভ ও মস্কোর মধ্যে সত্যিকারের ও স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য ১০টি আলাদা ক্ষেত্রে মতৈক্যে পৌঁছাতে হবে। এগুলোর মধ্যে আছে রাশিয়ার সৈন্য প্রত্যাহার, বন্দিদের মুক্তি প্রদান, ইউক্রেনের পারমাণবিক, খাদ্য ও জ¦ালানি নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, তার দেশের অখ-তা পুনঃপ্রতিষ্ঠা করা ও অপরাধীদের জবাবদিহিতার আওতায় আনতে ট্রাইব্যুনাল প্রতিষ্ঠা করা।

কোন দেশ কোন ক্ষেত্রে সহায়তা করতে পারে তা বেছে নিতে তাদের আহ্বান জানান ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেণ, আমার বিশ^াস আমাদের শক্তিশালী সমর্থক কানাডাও শান্তি ফর্মুলার একটি তারা স্বেচ্ছায় বেছে নেবে।

ফোরামে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ছিলেন কানাডার প্রতিরক্ষামন্ত্রী অনীতা আনান্দ। তিনি বলেন, ইউক্রেনের সেনাবাহিনী যুদ্ধে জয়লাভ করছে এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন কেবল ন্যাটোকে ঐক্যবদ্ধ করেছেন এবং এর উদ্দেশ্য নবায়নে সহায়তা করেছেন। ইউক্রেনের জনগণ ও প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির দৃঢ়তা আমাদের অনুপ্রেরণা দিয়ে চলেছে। ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনী সুশৃঙ্খল ও উন্নত প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত এবং তারা জয়লাভ করছে।

প্রায় নয় মাস যুদ্ধের পর রাশিয়া বড় ধরনের বিপর্যয়ের মধ্যে পড়ে গেছে এবং সম্প্রতি তারা গুরুত্বপূর্ণ শহর দক্ষিণ ইউক্রেনের খেরসন থেকে সৈন্য প্রত্যাহার করে নিয়েছে। কিন্তু ইউক্রেনের জ¦ালানি ও বিদ্যুৎ অবকাঠামোর ওরপ রাশিয়ার হামলা শীতে কি পরিণত হবে সেই ভয় জাগাচ্ছে।

এদিকে খারকিভ অঞ্চলে সাত মাসের দখলদারিত্বের সময় রাশিয়ান সেনাবাহিনীর যুদ্ধাপরাধ খতিয়ে দেখতে ইউক্রেন ও আন্তর্জাতিক তদন্তকারীরা জোটবদ্ধ হচ্ছেন। ইউক্রেনের পুলিশ বাহিনী বলেছে, তাদের কর্মকর্তারা রাশিয়ার সৈন্যদের বিরুদ্ধে ৩ হাজার ফৌজদারি অপরাধের অভিযোগ নিয়ে কাজ করছে।
দক্ষিণ খেরসন অঞ্চলেও রাশিয়ার সৈন্যদের নির্যাতন ও নৃশংসতার খবর আসতে শুরু করেছে। ইউক্রেনের কর্মখর্তারা বলেছেন, সেখানে তারা ৪৩০টি যুদ্ধপারাধের মামলা দায়ের করেছেন। পাশাপাশি চারটি স্থানে নির্যাতনের তদন্ত করছেন।

 

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.