বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১, ২০২২
-1.9 C
Toronto

Latest Posts

খাবারের পরিমাণ কমিয়েছে ২০% কানাডিয়ান

- Advertisement -
ছবি/ এ্যারোন ডোস

সাস্কাটুনের বহু মানুষ ও তাদের পরিবার খাবার জোগাড় করতে হিমশিম খাচ্ছে বলে জানান লাউরি ও’কনর। মুদি দোকানগুলো সাধ্যের বাইরে চলে যাওয়ায় এই পরিস্থিতিতে পড়তে হচ্ছে তাদের।

সাস্কাটুন ফুড ব্যাংক অ্যান্ড লার্নিং সেন্টারের নির্বাহী পরিচালক ও’কনর বলেন, জানুয়ারি থেকে আমরা স্পষ্টভাবেই চাহিদা বাড়তে দেখছি।
কানাডাজুড়ে পরিচালিত এক সমীক্ষার তথ্য অনুযায়ী, বর্ধিত খাদ্যমূল্যের সঙ্গে মানিয়ে নিতে বেশিরভাগ মানুষই কুপন ব্যবহার করছেন অথবা ছাড়ে বিক্রি হওয়া পণ্যের খোঁজ করছেন। অর্থ বাঁচাতে প্রায় ২০ শতাংশ মানুষ খাবারের পরিমাণ কমিয়ে দিচ্ছেন অথবা এড়িয়ে যাচ্ছেন।
ইউনিভার্সিটি অব সাস্কেচুয়ানের কানাডিয়ান হাব ফর অ্যাপ্লায়েড অ্যান্ড সোশ্যাল রিসার্চ ৬ থেকে ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত সমীক্ষাটি করে। বর্ধিত খাদ্যমূল্যের সঙ্গে কীভাবে মানিয়ে নিচ্ছেন? সমীক্ষায় এই প্রশ্ন রাখা হয়েছিল ১ হাজার ১ জনের কাছে।

- Advertisement -

স্ট্যাটিস্টিকস কানাডার ভোক্তা মূল্যসূচক প্রতিবেদন বলছে, সেপ্টেম্বরে বার্ষিক মূল্যস্ফীতি সামান্য কমে ৬ দশমিক ৯ শতাংশে দাঁড়ালেও মুদিপণ্যের মূল্য বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। মুদিপণ্যের দাম ১৯৮১ সালের পর সবচেয়ে দ্রুত বেড়েছে। সেপ্টেম্বরে মুদিপণ্যের দাম বেড়েছে এক বছর আগের একই সময়ের তুলনায় ১১ দশমিক ৪ শতাংশ।

বর্ধিত মূল্যের সঙ্গে খাপ খাওয়াতে সমীক্ষায় অংশগ্রহণকারী অধিকাংশ কানাডিয়ান কুপন কমানোর কথা জানিয়েছেন। পরিবারে খাদ্যের অপচয় কমিয়ে আনার কথা জানিয়েছেন প্রায় ৫৯ শতাংশ কানাডিয়ান। খাদ্যের জন্য যাতে যথেষ্ট তহবিল থাকে স্টো নিশ্চিত করতে খাবার নিয়ে পরিকল্পনা করছেন ৪৪ শতাশ।

দামে সস্তা হওয়ায় অপেক্ষাকৃত কম স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার কথা জানিয়েছেন সমীক্ষায় অংশ নেওয়া ৩০ শতাংশ কানাডিয়ান। খাবার চুরি করার কথা জানিয়েছে প্রায় ৫ শতাংশ। ফুড ব্যাংক বা কমিউনিটি ফ্রিজের শরনাপন্ন হওয়ার কথা জানিয়েছেন সমীক্ষায় অংশ নেওয়া আরও ৫ শতাংশ কানাডিয়ান।

ফুড ব্যাংকস অব কানাডার সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, মার্চে প্রায় ১৫ লাখ লোক ফুড ব্যাংকে আসেন। সংখ্যাটি গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ১৫ শতাংশ এবং কোভিডের পূর্বে অর্থাৎ ২০১৯ সালের মার্চের তুলনায় ৩৫ শতাংশ বেশি।

সমীক্ষার তথ্য অনুযায়ী, তরুণরা অর্থাৎ ১৮ থেকে ৩৪ বছর বয়সীদের মধ্যে ফুড ব্যাংক বা কমিউনিটি ফ্রিজ ব্যবহারের হার তুলনামূলক বেশি। সুষম খাদ্য জোগাড় করার সামর্থ্যও তাদের অপেক্ষাকৃত কম। ৩৫ থেকে ৫৪ বছর বয়সীদের মধ্যে কুপন ব্যবহার বা ছাড়কৃত মূল্যের পণ্য কেনার প্রবণতা বেশি।

 

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.