মঙ্গলবার, জুলাই ৫, ২০২২
23.1 C
Toronto

Latest Posts

কানাডায় বাড়ি ক্রয় কঠিন হতে পারে

- Advertisement -

কানাডার নতুন মর্টগেজ স্ট্রেস টেস্ট প্রথমবারের ক্রেতাদের জন্য বাড়ি ক্রয় কঠিন করে তুলতে পারে বলে মর্টগেজ ও আবাসন নীতি বিষয়ক বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন। ১ জুন থেকে নতুন নিয়ম এ চালু হতে যাচ্ছে।

- Advertisement -

সুপারিন্টেন্ডেন্ট অব ফাইন্যান্সিয়াল ইনস্টিটিউশনস (ওএসএফআই) এরই মধ্যে আবাসন ঋণের সুদের হারে পরিবর্তন আনার কথা নিশ্চিত করেছে। সে অনুযায়ী, সুদের নতুন হার হতে পারে চুক্তির অতিরিক্ত ২ শতাংশীয় পয়েন্ট অথবা ৫ দশমিক ২৫ শতাংশ অথবা এর মধ্যে যেটি বেশি হয় সেটি।

সুদের হারের এ বৃদ্ধির ফলে স্বল্প মেয়াদে আবাসন ঋণ নেওয়া কারও কারও জন্য কঠিন হয়ে পড়বে বলে গ্লোবাল নিউজকে জানিয়েছেন একাধিক মর্টগেজ ও আবাসন নীতি বিষয়ক বিশেষজ্ঞ। ভ্যানকুভারভিত্তিক মর্টগেজ ব্রোকার অ্যালেক্স ম্যাকফেডিয়েন বলেন, নতুন নিয়মের ফলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবেন প্রথমবার বাড়ি কিনতে যাওয়া ক্রেতারা। কারণ, এরইমধ্যে বাড়ি কিনেছেন তাদের মতো ওই পরিমাণ ইকুইটি তাদের হাতে নেই এবং তাদের সিংহভাগই বিমাকৃত ঋণ নিয়েছেন।

২০১৮ সালের স্ট্রেস টেস্টের পরিবর্তন গ্রাহকদের ঋণ নেওয়ার ক্ষমতা ২২ শতাংশ কমিয়ে দিয়েছিল। যদিও এ বছরের পরিবর্তন ঋণ নেওয়ার ক্ষমতা কমাবে ৪ থেকে ৫ শতাংশ। কোনো কোনো বিশেষজ্ঞ বলছেন, এ পরিবর্তন প্রথমবারের মতো ক্রেতাদের ওপর কিছুটা প্রভাব ফেললেও সার্বিকভাবে কানাডার আবাসন বাজারের ওপর তেমন কোনো প্রভাব পড়বে না।

ইউনিভার্সিটি অব টরন্টোর নগর পরিকল্পনা বিভাগের অধ্যাপক ডেভিড হালচানস্কি বলেন, স্ট্রেস টেস্ট বিধির সামান্য পরিবর্তনের প্রভাব কমই হবে। প্রথমবারের মতো বাড়ি কিনতে চাওয়া ক্রেতারা এতে কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.