বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৮, ২০২২
27.2 C
Toronto

Latest Posts

ভ্যাকসিন না নিলে কুইবেকে আর্থিক জরিমানা

- Advertisement -
কুইবেকের প্রিমিয়ার ফ্রাসোয়াঁ লেগু…ছবি/এনএইচএল

কুইবেকের যেসব নাগরিক ভ্যাকসিন নিতে অস্বীকৃতি জানাবেন তাদেরকে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ আর্থিক জরিমানার মুখে পড়তে হবে বলে মঙ্গলবার জানিয়েছেন কুইবেকের প্রিমিয়ার ফ্রাসোয়াঁ লেগু। প্রদেশের জনস্বাস্থ্য বিষয়ক পরিচালকের আকস্মিক পদত্যাগের পরদিন এ ঘোষণা দিলেন তিনি।

ভ্যাকসিন-সংক্রান্ত জরিমানার সিদ্ধান্ত কানাডায় এই প্রথম এবং এটা প্রযোজ্য হবে ভ্যাকসিন না নেওয়া ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে, যাদের স্বাস্থ্যগত কারণে অব্যাহতি পাওয়ার সুযোগ নেই। মন্ট্রিয়লে সাংবাদিকদের ফ্রাসোয়াঁ লেগু বলেন, এটা জরুরি। কারণ, কুইবেকের মাত্র ১০ শতাংশ তরুণ ভ্যাকসিনের বাইরে আছেন। অথচ নিবিড় পচির্যা কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন কোভিড রোগীদের অর্ধেক তারাই। আমি মনে করি, এটা কুইবেকের ৯০ শতাংশ বাসিন্দা যারা অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন তাদের ক্ষেত্রে ন্যায্যতার প্রশ্ন। আমার মনে হয় এ ধরনের পদক্ষেপ তারা আমাদের কাছে তাদের পাওনা। ভ্যাকসিনের বাইরে থাকা লোকজন স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থার ওপর যে বাড়তি চাপ তৈরি করছে তা তাদেরকে পরিশোধে বাধ্য করা উচিত।

- Advertisement -

ভ্যাকসিন নিতে অস্বীকৃতি জানানো ব্যক্তিদের কাছ থেকে জরিমানা বাবদ কি পরিমাণ অর্থ আদায় করা হবে তা এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। তাছাড়া এটা কখন এবং কীভাবে প্রয়োগ করা হবে সে ব্যাপারেও কিছু জানানো হয়নি।

জনগণের দৃষ্টি অন্যদিকে ফেরাতেই লেগু এ ঘোষণা দিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন বিরোধী লিবারেল পার্টির নেতা ডমিনিক অ্যাঙ্গলেড। তিনি বলেন, শিশুদের নিরাপদে স্কুলে ফেরানো, আরও র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট এবং অস্ত্রোপচার পুনরায় শুরুর বিষয়ে কোনো কিছু আমরা শুনিনি। প্রিমিয়ারের এ ঘোষণাকে ধোঁয়াশা বলে মন্তব্য করেন তিনি।

কোভিড-১৯ এর সাম্প্রতিক ঢেউ মোকাবেলায় বিরোধীদল ও বিশেষজ্ঞরা সরকারের সমালোচনা করার পর সোমবার রাতে পদত্যাগ করেন কুইবেকের জনস্বাস্থ্য বিভাগের পরিচালক ডা. হোরাসিও আরুডা। কোভিড-১৯ এ আক্রান্তের সংখ্যা ব্যাপক হারে বেড়ে যাওয়ায় কুইবেকের স্বাস্থ্য সেবা ব্যবস্থার ওপর বড় ধরনের চাপ তৈরি হয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে রাত ১০টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত প্রদেশে কারফিউ জারি করা হয়েছে। সংক্রমণের লাগাম টানতে এতো কঠোর বিধিনিষেধ কানাডার আর কোথাও দেওয়া হয়নি।

মঙ্গলবারের সংবাদ সম্মেলনে আরুডার উত্তরসূরী হিসেবে ডা. লুক বয়লোর নাম ঘোষণা করেন প্রিমিয়ার ফ্রাসোয়াঁ লেগু। তিনি সরকারের স্বাস্থ্য সেবা গবেষণা প্রতিষ্ঠানের প্রধানের দায়িত্ব পালন করছিলেন। দায়িত্ব পাওয়ার পর বয়লো সাংবাদিকদের বলেন, এই সকালেই আমাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতির পুর্ণাঙ্গ মূল্যায়নের এখনও সময় পাইনি আমি।

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.