মঙ্গলবার, জুলাই ৫, ২০২২
19.7 C
Toronto

Latest Posts

মহামারি সহায়তা প্যাকেজ পর্যালোচনায় প্রস্তুত বিরোধী এমপিরা

- Advertisement -
ফ্রিল্যান্ডের কার্যালয় থেকে রোববার বলা হয়েছে, কমিটির কাছ থেকে দ্রুত কাজ প্রত্যাশা করছে সরকার

লিবারেলদের সাম্প্রতিক মহামারি সহায়তা প্যাকেজ পর্যালোচনার জন্য তৈরি হচ্ছে। সেই সঙ্গে অসংখ্য আর্থিক বিষয় নিয়ে অর্থমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ডকে প্রশ্নের মুখে ফেলতে চাইছেন তারা।

হাউজ অব কমন্সের ১২ সদস্যবিশিষ্ট ফিন্যান্স কমিটির ভৈঠক সোমবার অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। এমপিরা দুই সপ্তাহের জন্য ছুটিতে যাওয়ার আগে সহায়তা বিল ভোটে দেওয়ার জন্য চূড়ান্ত করার লক্ষ্যেই এ বৈঠক। বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিতে ফ্রিল্যান্ডকে কমিটির সামনে কমপক্ষে দুই ঘণ্টা বসতে দিতে রাজি হয়েছে লিবারেলরা। এটাই বিরোধী এমপিদের অভ্যন্তরীণ অর্থনীতি ও সরকারের মহামারি মোকাবেলা নিয়ে অর্থমন্ত্রীকে প্রশ্ন করার সুযোগ এনে দিয়েছে।

- Advertisement -

কমিটির সদস্য ও এনডিপির ফিন্যান্স ক্রিটিক ড্যানিয়েল ব্লেইকি বলেন, জরুরি সহায়তার কারণে নি¤œ আয়ের যেসব জ্যেষ্ঠ নাগরিক ও পরিবারের আয় বেড়েছে তা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত বাতিলের বিষয়ে ফ্রিল্যান্ডের ওপর চাপ দেওয়া হবে। যেসব হাজারও কর্মী এখনও সমস্যায় রয়েছেন তাদেরকে বাদ রেখে যারা লকডাউনের কারণে কাজ হারিয়েছেন কেবল তারা কিভাবে আয় সহায়তা পেতে পারেন তা নিয়ে উদ্বিগ্ন নিউ ডেমোক্র্যাটরা। লিবারেলরা এমন পুনরুদ্ধার কর্মসূচির কথা বলে আসছে যা থেকে কেউ বাদ পড়বে না। অথচ বিলে তার প্রতিফলন নেই। মূল্যস্ফীতির রেখাটি ক্রমেই উর্ধ্বমুখি হচ্ছে এবং আবাসন, গ্রোসারি, চিকিৎসার মতো খরচ বহনে কানাডিয়ানরা হিমশিম খাচ্ছেন। অথচ লিবারেলরা যে বিল বেছে নিয়েছে তাতে ঝুঁকিতে থাকা ব্যক্তিদের আরও ঝুঁকিতে ফেলে দেওয়া হচ্ছে।

মূল্যস্ফীতির বিষয়টি বিবেচনায় আছে কমিটির কনজার্ভেটিভ এমপিদেরও। যদিও সরবরাহ ব্যবস্থাসহ একাধিক কারণ জড়িত রয়েছে মূল্যস্ফীতির পেছনে।

বিল পর্যালোচনার অংশ হিসেবে কখন ফ্রিল্যান্ডকে প্রশ্ন করা হবে কমিটির এমপিরা সে সিদ্ধান্ত নেবেন। এ ব্যাপারে ফ্রিল্যান্ডের কার্যালয় থেকে রোববার বলা হয়েছে, কমিটির কাছ থেকে দ্রুত কাজ প্রত্যাশা করছে সরকার। ফ্রিল্যান্ডের মুখপাত্র আদ্রিয়েনে ভপশাস বলেন, আইনটি যাতে দ্রুত পাস হয় ও অনতিবিলম্বে কানাডিয়ানরা সহায়তা পান সেজন্য সব দল ও সব এমপিকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানাচ্ছি।

বিলে লকডাউনের কারণে কাজ হারানো ব্যক্তিদের সহায়তায় ৭৪০ কোটি ডলার বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। পাশাপাশি সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসাগুলোর ভাড়া ও মজুরি ভর্তুকি বাবদ ৭ মে পর্যন্ত সহায়তা প্রদানও এর মধ্যে অন্তর্গত। এছাড়া অসুস্থ শিশু, নিজেদের অসুস্থতার কারণে যেসব কর্মীকে বাড়িতে থাকতে হচ্ছে তাদের জন্য সহায়তাও বসন্ত পর্যন্ত বর্ধিত করার প্রস্তাব করা হয়েছে বিলে।

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.