বুধবার, মে ২৫, ২০২২
12 C
Toronto

Latest Posts

মিশ্র ভ্যাকসিন গ্রহীতাদের বিদেশ ভ্রমণ নিশ্চিত করার দাবি কনজার্ভেটিভদের

- Advertisement -
হেলথ ক্রিটিক রেম্পেল গার্নার এমপি

যারা কোভিড-১৯ এর মিশ্র ভ্যাকসিন নিয়েছেন তারা যাতে আন্তর্জাতিক ভ্রমণে সমর্থ হন সেটা নিশ্চত করতে লিবারেল সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে কনজার্ভেটিভ পার্টি। গত বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্যাটি হাইডুর কাছে পাঠানো এক চিঠিতে এই আহ্বান জানান দলটির হেলথ ক্রিটিক রেম্পেল গার্নার। মিশ্র ভ্যাকসিন গ্রহণের কারণে কানাডিয়ানরা অনেক দেশে ঢুকতে বাধার সম্মুখীন হচ্ছেন বলেও চিঠিতে উল্লেখ করেছেন তিনি।

ক্যালগেরি নোজ হিলের এমপি বলেন, ফেডারেল সরকারের নির্দেশনার অভাবে প্রাদেশিক স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষগুলো আগ্রহী কানাডিয়ানদের তৃতীয় ডোজ নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছে। কুইবেক স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে আগ্রহীদের এও বলা হচ্ছে যে, তৃতীয় ডোজ কতটা নিরাপদ সেটা এখনও পরিস্কার নয়। তৃতীয় ডোজ হিসেবে ফাইজার-বায়োএনটেক বা মডার্নার ভ্যাকসিনের ঝুঁকি কতখানি সেটা জানতে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নেওয়ারও আহ্বান জানানো হচ্ছে।

- Advertisement -

সোমবার এক সংবাদ বিবৃতিতে কুইবেকের স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, তৃতীয় ডোজ একটি অস্বাভাবিক ব্যবস্থা। স্বল্প মেয়াদে যারা বিদেশ ভ্রমণে আগ্রহী এবং এজন্য ভ্যাকসিন গ্রহণ জরুরি তৃতীয় ডোজ কেবল তাদের জন্য।
তৃতীয় ডোজ সম্পর্কে কেন্দ্রীয় নীতিমালা প্রকাশে লিবারেল সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছেন রেম্পেল গার্নার, যাতে করে কানাডিয়ানরা জেনেশুনে নিরাপদ সিদ্ধান্তটি নিতে পারেন। চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেছেন, কানাডিয়ানরা আপনাদের পরামর্শ শুনে ভ্যাকসিন নিয়েছেন। আপনাদের ভ্যাকসিন বিদেশে গ্রহণযোগ্য করতে লিবারেল সরকার যা করেছে তা যথেষ্ট নয়।

এর আগে অন্টারিওর স্বাস্থ্যমন্ত্রী ক্রিস্টিন এলিয়টও একই দাবি জানিয়ে অটোয়ার উদ্দেশে চিঠি লিখেছেন। চিঠিতে তিনি ভ্যাকসিন মিশ্রণের প্রতি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায়ে বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে কাজ করতে অটোয়ার প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

এর পরিপ্রেক্ষিতে হাইডুর কার্যালয় থেকে বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক ভ্রমণের জন্য ভ্যাকসিনেশনের পক্ষে প্রমাণ নিশ্চিতের লক্ষ্যে প্রাদেশিক ও আঞ্চলিক সরকারগুলোর সঙ্গে কাজ করছেন তারা।

উল্লেখ্য, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো ও উপ-প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ফ্রিল্যান্ডসহ অনেকেই কোভিড-১৯ এর মিশ্র ভ্যাকসিন নিয়েছেন। ট্রুডো ও ফ্রিল্যান্ড দুজেনই প্রথম ডোজ হিসেবে নিয়েছেন অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন এবং দ্বিতীয় ডোজ হিসেবে নিয়েছেন মডার্নার ভ্যাকসিন।

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.