রবিবার, নভেম্বর ২৭, ২০২২
4.6 C
Toronto

Latest Posts

পণ্য পাঠানোর খুরচ বেড়েছে

- Advertisement -
ছবি/ ইমসেতো লয়িন

জ্বালানি সারচার্জের কারণে অনলাইন অর্ডারের পণ্য পাঠানোর খরচ বেড়ে গেছে কানাডার খুচরা বিক্রেতাদের। গ্যাসের বর্ধিত মূল্য পুষিয়ে নিতেই শিপিং রেট বাড়িয়ে দিয়েছে কুরিয়ার সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো।

বাড়তি এই চার্জ কানাডার অভ্যন্তরে পণ্য পরিবহনকে ব্যয়বহুল করে তুলছে। কোনো কোনো কুরিয়ারের ব্যয় ৪০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়ে গেছে। বস্ত্র ও পাদুকা কোম্পানিগুলোর জন্য এই বর্ধিত শিপিং ব্যয় বিশেষভাবে চ্যালেঞ্জিং।

- Advertisement -

রিটেইল কাউন্সিল অব কানাডার মুখপাত্র মিশেল ওয়াসিলিশেন বলেন, অধিকাংশ কোম্পানিই অভ্যন্তরীণ বাড়তি শিপিং ব্যয় পুষিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে। উচ্চ মূল্যস্ফীতি ও অনলাইনে ডলার নিয়ে চলমান কাড়াকাড়ি অবস্থার কারণে খুচরা বিক্রেতারা আর বাড়তি ব্যয় ভোক্তাদের ওপর চাপাতে রাজি নয়। খুচরা বিক্রয় খাত হচ্ছে কানাডার সবচেয়ে প্রতিযোগী শিল্প। এ কারণেই বিনামূল্যে পরিবহনের সর্বনি¤œ সীমা নির্ধারণ অথবা ভোক্তাদের ওপর সরাসরি সারচার্জ আরোপকেই এক্ষেত্রে সবশেষ অবলম্বন হিসেবে ধরা হয়। খুচরা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো অন্য কোনোখানে সঞ্চয়কে অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে।

আন্তর্জাতিক পণ্য পরিবহন ব্যয় অবশেষে স্বাভাবিক হতে শুরু করায় অভ্যন্তরীণ পরিবহন ব্যয় বেড়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তুলনামূলক যৌক্তি কনটেইনার ফ্রেইটের পণ্য কানাডার অভ্যন্তরে উচ্চ ব্যয়ে পরিবহন করেছে।

মহামারির সময় অনলাইন বিক্রিতে বড় ধরনের উল্লম্ফন দেখেছিল ইন্ডিগো। তারাও পরিবহন ব্যয় বেড়ে যাওয়া সত্ত্বেও পণ্যের দাম বাড়ানো এড়িয়ে চলছে। রুইজ বলেন, উচ্চ মূল্যস্ফীতির এই সময়ে ভোক্তাদের অনুভুতি আমরা বুঝতে পারি এবং পণ্যের মূল্য বাড়াতে চাই না।
এর পরিবর্তে কোম্পানিটি কেন্দ্রীয় পণ্যগারের বদলে স্থানীয় স্টোর থেকে পণ্য সরবরাহের সক্ষমতা অর্জনের চেষ্টা করছে। এটা তারা করছে পরিবহন ব্যয় কমিয়ে আনার লক্ষ্যে। অক্টোবরে আমরা নতুন ওয়েবসাইট চালু করতে যাচ্ছি, যেখানে স্টোর থেকে পণ্য সরবরাহের ব্যবস্থা থাকবে। এর অর্থ হলো অনলাইন ভোক্তাদের জন্য আমাদের সব স্টোরকেই আমরা পণ্যাগার হিসেবে ব্যবহার করতে পারবো। কেউ হ্যালিফ্যাক্সের ক্রেতা হলে আমরা তাকে টরন্টোর কেন্দ্রীয় বিতরণ কেন্দ্রের পরিবর্তে হ্যালিফ্যাক্সের স্টোর থেকে পণ্যটি ক্রেতাকে পাঠিয়ে দেবো। জ¦ালানির এইা উচ্চ মূল্য আমরা স্থানীয় পণ্য মজুদের মধ্য দিয়ে সমাধান করতে পারি।

খুচরা বিক্রেতাদের মধ্যে বিক্রিত পণ্য সবচেয়ে বেশি ফেরত আসে পোশাক বিক্রেতাদের। তারাও জ¦ালানি সারচার্জ ভোক্তাদের ওপর চাপাতে চাইছে না। কানাডিয়ান আন্ডারওয়্যার ও পোশাকের ব্র্যান্ড নিক্স ওয়্যার ইনকরপোরেশনের মুখপাত্র এমিলি স্কারলেট বলেন, পণ্য পরিবহনে বিঘœ ও ব্যয় বৃদ্ধির একাধিক কারণ রয়েছে। কিন্তু আমরা আমাদের ক্রেতাদের সেটি বুঝতে দিতে চাই না।

 

- Advertisement -

Latest Posts

Don't Miss

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.