বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৭:৪৮ am

মুশফিক ঝড়ে টাইগারদের ২৬২ রানের লড়াকু টার্গেট

মুশফিক ঝড়ে টাইগারদের ২৬২ রানের লড়াকু টার্গেট

বাংলা মেইল ডটকম ডেস্ক
শেষ মুহূর্তে মুশফিকুর রহিমের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে লড়াকু সংগ্রহ পেয়েছে টিম বাংলাদেশ। একদিকে লাসিথ মালিঙ্গা যেমন টাইগারদের ধসিয়ে দিয়েছেন, অন্যদিকে লঙ্কান বোলারদের উপরও ছুরি চালিয়েছেন টাইগারদের সাবেক ক্যাপ্টেন মুশফিকুর রহিম। আর তার লড়াকু ইনিংসের উপর ভর করেই টাইগারদের সংগ্রহ দাঁড়িয়ে ২৬১ রান।

 

এদিকে শেষ মুহূর্তে লঙ্কান ফিল্ডারদের বল কুঁড়ানোয় ব্যস্ত রাখেন মুশফিকুর রহিম। তবে এ কৃতীত্বের বড় অংশীদার যে টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল। ২২৯ রানে ৯ উইকেট নিয়ে যখন মুশফিক প্যাভিলিয়নের দিকে ফেরত যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন, তখন সবাইকে অবাক করে দিয়ে ফের মাঠে নামেন আঙ্গুলে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়া তামিম ইকবাল।

 

তিন ওভার বাকি থাকতে কেবল সঙ্গী অভাবে কেন প্যাভিলিয়নে ফেরত আসবে মুশফিক, তা মানতে পারেননি তামিম। ডান হাতে ব্যাট নিয়ে নেমে পড়েন মাঠে। এক হাতে ব্যাট ধরে ঠেকিয়েছেনও একটি বল। এরপরই স্ট্রাইকে আসেন মুশফিক। ৪৮তম ও ৪৯ তম ওভারে লঙ্কান বোলারদের উপর ছুরি চালান মুশফিক। এর মধ্যে আরও একটি বল ডান হাতে ঠেকান তামিম।

 

তবে শেষ মুহূর্তে তিন বল বাকি থাকতে আউট হয়ে ফেরার আগে মুশফিকুর রহিম খেলেন ১৪৪ রানের এক অনবদ্য ইনিংস। যা টাইগারদের ওয়ানডে ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেশি রানের রেকর্ড। একইসঙ্গে মুশফিকুর রহিমের সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ডগড়া ম্যাচও এটি।

 

এর আগে টসে জিতে ব্যার্টিংয়ে নেমে মালিঙ্গার গোলায় বিধ্বস্ত হতে থাকে টাইগারদের ব্যাটিং লাইন আপ। লিটন দাস, সাকিব-আল হাসান ও নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান মাহমুদুল্লাহ শূন্য রানে আউট হলে মারাত্মক চাপে পড়ে টিম বাংলাদেশ। এরপর মোহাম্মদ মিঠুনের ৬৩ রান ও মুশফিকুরের ১৪৪ রানের উপর ভর করে ২৬১ রানের লড়াকু ইনিংস দাঁড় করায় টিম বাংলাদেশ।

 

লঙ্কানদের পক্ষে মালিঙ্গা ১০ ওভারে ২৩ রান খরচে ৪ উইকেট তুলে নিয়েছেন। এ ছাড়া লাকমল, আপনসন ও পেরেরা প্রত্যেকে একটি করে উইকেট লাভ করেন।

Comments