Sat 28th Nov 2020, 2:30 am

আলবার্টায় প্রথমবারের মতো এইচ-ওয়ান এন-ওয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা রোগীর সন্ধান

আলবার্টায় প্রথমবারের মতো এইচ-ওয়ান এন-ওয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা রোগীর সন্ধান

বাংলামেইল ডটকম ডেস্ক

সেন্ট্রাল আলবার্টায় মধ্য অক্টোবরে এইচ-ওয়ান এন-ওয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা রোগী সনাক্ত করা হয়েছে। কানাডায় এ ধরনের রোগী এটাই প্রথম এবং সারাবিশে^ ২০০৫ সাল থেকে এখন পর্যন্ত ২৭ জন সোয়াইন ফ্লু গোত্রের ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন। তবে কানাডায় ওই ব্যক্তির কাছ থেকে রোগটি আর ছড়ায়নি। এ নিয়ে ঝুঁকির কিছু নেই বলে নিশ্চিত করেছেন আলবার্টার চিফ মেডিকেল অফিসার ডা. দিনা হিনশ।
আলবার্টার চিফ ভেটেরিনারিয়ান ডা. কিথ লেহম্যান বলেন, আলবার্টার শূকরের মধ্যে ইনফ্লুয়েঞ্জা অস্বাভাবিক কিছু নয়। প্রতি প্রান্তিকে এ ধরনের ১০ থেকে ৩০টি ঘটনা পাওয়া যায়। বলা যায়, এইচ-ওয়ান এন-ওয়ান এমন একটি ভাইরাস, যা শূকরের মধ্যে অস্বাভাবিক নয়। গত পাঁচ বছরে আমরা যেটা লক্ষ্য করছি, তা হলো এইচ১এন১-এর ব্যাপকতা বেশ বেড়েছে।
এইচ-ওয়ান এন-ওয়ান খাদ্য-সম্পর্কিত কোনো অসুস্থতা নয় বলে জানিয়েছেন আলবার্টার স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। এ রোগে যেসব উপসর্গ দেখা দেয়, তার মধ্যে আছে জ¦র, কাশি, হাচি, শ্বাসকষ্ট, চোখ লাল হয়ে যাওয়া এবং ক্ষুধামন্দা।
কানাডার প্রধান জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. তেরিসা ট্যাম বলেন, আক্রান্ত শূকরের সংস্পর্শে এলেই কেবল বিরল এই ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি তৈরি হয়।
ফ্লু মৌসুমে আলবার্টায় এটিই বিরল ভাইরাসটির প্রথম সংক্রমণ। আলবার্টা স্বাস্থ্য বিভাগ সেন্ট্রাল আলবার্টায় কোভিড-১৯ পরীক্ষা কেন্দ্রে ঐচ্ছিকভাবে ইনফ্লুয়েঞ্জা পরীক্ষার ব্যবস্থাও রেখেছে।

 

Comments