Sat 28th Nov 2020, 1:28 am

অক্টোবরে টরন্টোতে বাড়ির দাম বেড়েছে ১৩.৭ শতাংশ

অক্টোবরে টরন্টোতে বাড়ির দাম বেড়েছে ১৩.৭ শতাংশ

বাংলামেইল ডটকম ডেস্ক

টরন্টোর রিয়েল এস্টেট মার্কেটে চাহিদা ও জোগানের মধ্যে মিল খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। গ্রাহকরা চাইছেন উপশহরগুলোতে একক বাড়ি কিনতে। কিন্তু জোগান বেশি শহরের কেন্দ্রস্থলে কন্ডোমিনিয়ামের।
মঙ্গলবার প্রকাশিত টরন্টো রিজিয়নাল রিয়েল এস্টেট বোর্ডের প্রতিবেদনেও বিষয়টি উঠে এসেছে। প্রতিবেদনের তথ্যমতে, অক্টোবরে গ্রেটার টরন্টো এলাকায় বাড়ির গড় বিক্রয়মূল্য ছিল ৯ লাখ ৬৮ হাজার ৩১৮ ডলার, গত বছরের তুলনায় যা ১৩ দশমিক ৭ শতাংশ বেশি। একই সময়ে কন্ডোমিনিয়ামের বিক্রয়মূল্য বেড়েছে মাত্রা দশমিক ৭ শতাংশ।
তুলনামূলক তথ্যে দেখা যায়, একক বাড়ি বা ডিটাচড হোমের মূল্য ১৪ দশমিক ৮ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ১২ লাখ ৪ হাজার ৮৪৪ ডলার। সিমকো কাউন্টিতে বাড়ির মূল্য বেড়েছে গত বছরের চেয়ে ২০ ও ডারহাম রিজিয়নে ১৮ শতাংশ।
ফেরো রিয়েল এস্টেট ইনকরপোরেশনের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ফ্রেডি মাক বলছেন, বাড়ি ক্রয়ের ক্ষেত্রে স্থান নির্বাচনে মানুষের মধ্যে একটা পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে। ওয়ার্কিং ফ্রম হোম, ব্যক্তিগত গোপনীয়তা ও আউটডোর সুবিধা বসবাসের জন্য উপশহরকে বেছে নেওয়ার পেছনে কারণ হতে পারে। মানুষ এখন আর গা ঘেষাঘেষি করে থাকতে চায় না।
রিয়েল এস্টেট এজেন্টগুলো অক্টোবরে রেকর্ড ১০ হাজার ৫৬৩টি বাড়ি বিক্রি করেছে। ২০১৯ সালের একই সময়ের তুলনায় সংখ্যাটি ২৫ দশমিক ১ শতাংশ বেশি। কন্ডোমিনিয়ামের সার্বিক বিক্রি গত বছরের চেয়ে ২ দশমিক ২ শতাংশ বাড়লেও টরন্টো শহরে ৮ দশমিক ৫ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। উপশহরে আবার ২৮ দশমিক ৪ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।
রিয়েল এস্টেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট লিসা প্যাটেল বলেন, কোভিড-১৮৯ মহামারির আগে বিনিয়োগকারীদের আশা ছিল ২০২০ সালে তারা আরও বেশি বাড়ি বিক্রি করতে সক্ষম হবেন।  তাছাড়া শহরের কেন্দ্রস্থলের বাড়ির মালিকদের পক্ষে এখন পর্যটক, শিক্ষার্থী ও তরুণ পেশাজীবীদের খুঁজে পাওয়া মুশকিল, যাদের কাছে তারা বাড়িটি ভাড়া দেবেন। মানুষকে আমরা বলতে শুনছিÑভাইরাস এখনও যায়নি। তাই ভাড়াটিয়াদের আমরা আমাদের বাড়ি দেখাতে চাই না। আমরা চাই না তারা বাড়ির ভেতরে আসুক।
তবে টরন্টোর সার্বিক আবাসন বাজার গত বছরের এই সময়ে যেখানে ছিল এখনও সেখানেই আছে মন্তব্য করে টরন্টো রিয়েল এস্টেট বোর্ডের প্রধান বাজার বিশ্লেষক জেসন মার্সার বলেন, লকডাউন শুরুর পর বিক্রি প্রায় বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরও চলতি বছরের শুরু থেকে অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ি বিক্রি গত বছরের চেয়ে ভালো অবস্থায় আছে।

 

Comments