শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ৯:৫১ pm

প্রিমিয়ার ফোর্ডের কঠোর সতর্কতা

প্রিমিয়ার ফোর্ডের কঠোর সতর্কতা

মোহাম্মদ আলী বোখারী  

বর্হিবিশ্ব থেকে কানাডার অন্টারিও প্রদেশে আগমনকারীদের কোয়ারান্টাইন আইন লংঘণের বিষয়ে প্রিমিয়ার ডাগ ফোর্ড সতর্কতা উচ্চারণ করেছেন। কেননা প্রদেশে আগমনের ক্ষেত্রে ওই আইনকে তিনি অধিকার নয়, বরং ‘প্রিভিলেজ’ বা ‘বিশেষাধিকার’ বা ‘প্রাধিকার’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। হঠাৎ করে প্রদেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় লকডাউনের সর্বশেষ ধাপ অবমুক্তের ক্ষেত্রে ধীর পদক্ষেপের অংশ হিসেবে তা বিবেচনায় নেয়া হয়েছে। 

গত মঙ্গলবার কুইন্স পার্কে প্রিমিয়ার ফোর্ড বলেছেন, ‘উই আর কামিং ডাউন হার্ড অন পিপল দ্যাট আর নট কোয়ারান্টাইনিং কামিং ইন্টু আওয়ার কান্ট্রি।’ অর্থাৎ যারা আমাদের দেশে এসে কোয়ারান্টাইনে থাকছেন না, তাদের কঠোরভাবে দমন করা হবে। তার ভাষায়, ‘কানাডায় আসা বিশেষাধিকার, একইভাবে অন্টারিওতে এসে আপনি যদি কোয়ারাইন্টাইনে না থাকেন, বসে না থাকেন, তা হলে আমরা আপনাদের পিছু নেব। তিনি আরও বলেন, বিশাল আয়োজন সম্পর্কে গুরুত্বারোপের কমতি নেই, তবু বিপুল পার্টি ও বিয়ে থেমে নেই। জুলাইয়ের পর হঠাৎ করেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা মঙ্গলবার ১৮৫-তে উপনীত হয়েছে। 

ফোর্ড বলেন, ‘অনেক সংস্কৃতিতে বড়ো আকারের বিয়ের আয়োজন হয়, তারা বিশ্বের নানা দেশ থেকে অতিথিদের আমন্ত্রণ জানান; এটা আপনারা করতে পারেন না, এটা সমগ্র প্রদেশের জন্য বিরক্তিকর, যেখানে অপরাপররা ভালোভাবে দিনাতিপাত করছেন।’ 

কীভাবে এই আগমন ঘটছে, এ বিষয়ে বিশদ জানতে চাইলে প্রিমিয়ারের অফিস থেকে জানানো হয় যে, কানাডার নাগরিক ও স্থায়ী বাসিন্দাদের কানাডায় আসতে কোনো বাধা নেই, সেটা ফেডারেল আইনসঙ্গত।

তাই কানাডায় প্রবেশকারী কোয়ারান্টাইন আইন লংঘণকারীদের ক্ষেত্রে ছয় মাসের জেল অথবা ৭ লাখ ৫০ হাজার ডলার জরিমানা নির্ধারিত। আরসিএমপি, প্রাদেশিক পুলিশ ও স্থানীয় পুলিশ কোয়ারান্টাইন লংঘণকারীদের ক্ষেত্রে টিকেট ইস্যু থেকে শুরু করে ২৭৫ থেকে ১,০০০ ডলার পর্যন্ত অর্থদন্ড করছে। 

Comments